ফেসবুকে টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন চালু করে হ্যাকিং থেকে সুরক্ষিত রাখুন ফেসবুক আইডি

gold iphone 6 with note pads 744464 compress48

সবাই চায় তার ফেসবুক একাউন্টের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে। এজন্য বড় বড় অদ্ভুত সব পাসওয়ার্ড দেয় কেউ কেউ। কিন্তু যতই কঠিন লগইন ডিটেইলস সেট করুন না কেন, প্রযুক্তিগতভাবেই আপনার ফেসবুকসহ ইমেইল এড্রেস ও অন্যান্য পাসওয়ার্ড হ্যাক হবার ঝুঁকিতে রয়েছে। আর এই বিপদের হাত থেকে কিছুটা নিরাপদ রাখতে ফেসবুক, গুগল ও আরও কিছু অনলাইন সেবাদাতা কোম্পানি “টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন” সুবিধা চালু করেছে। এটি ব্যবহার করলে প্রতিবার নতুন ডিভাইস/ব্রাউজারে আপনার কাঙ্ক্ষিত সেবায় (উদাহরণস্বরূপ ফেসবুকে) সাইন ইন করার সময় ইউজারনেম-পাসওয়ার্ড ইনপুট করার পরেও সেখানে আরেকটি পিন কোড দিতে হবে। এই কোডটি মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে আসে। এগুলোকে সিক্যুরিটি কোডও বলা হয়, যা প্রতিবারই সার্ভার থেকে পাঠানো হয়।

টু স্টেপ ভেরিফিকেশন কি? ( Two Step Verification): 


টু স্টেপ ভেরিফিকেশন কি হলো দ্বিতীয় স্তরেরে একটি নিরাপত্তা ব্যবস্থা এখানে এই সিস্টেম টি ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্টের সর্ব্বোচ্চ নিরাপত্তা দিয়ে থাকে । এই সুবিধা টি জিমেইল,ফেসবুক, সহ আরো অনেক সাইট দিয়ে থাকে এটির মাধ্যমে তারা তাদের অ্যাকাউন্ট আরো সুরক্ষিত রাখতে পারে। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, ফেসবুকে টু স্টেপ ভেরিফিকেশন চালু করা থাকলে আপনি যখন ফেসবুকে আপনার ফোন নাম্বার/ই-মেইল ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগিন করবেন। তখন পাসওয়ার্ড দিয়ে লগিনের সময় আপনার ফোনে SMS এর মাধ্যমে একটি OTP (অন টাইম পাসওয়ার্ড)  আসবে। এই OTP কোডটি না দিলে আপনার আইডি ফেসবুকে লগিন হবে না। সুতরাং আপনার আইডির পাসওয়ার্ডও এখন কেউ জানলে সে ফেসবুকে লগিন করতে পারবে না। কারণ ফেসবুকে পাসওয়ার্ড দিয়ে লগিনে ক্লিক করার পরে OTP কোড চাইবে।

টু স্টেপ ভেরিফিকেশন সিস্টেম কিভাবে কাজ করে? 


আগেই বলছি এটি দুই স্তর বিশিষ্ট যাচাই কর পদ্ধতি  , যখন কোন অ্যাকাউন্ট মালিক তার অ্যাকাউন্টে পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করবে তখন সাইট থেকে ইমেল বা মোবাইল নাম্বারে কোড পাঠাবে সেটা দিলে তারপর আপনি লগিন করতে পারবেন । এটির ফলে অন্য কেউ আপনার ফেসবুক বা জিমেইল বা অন্য সাইট যেটা এই সিস্টেম সাপোর্ট করে পাসওয়ার্ড জেনে তাও লগিন করতে পারবে না কারণ সে যতই লগিন করার চেষ্টা করুক করতে পারবে না আপনার ফোন আপনার কাছে তাই কোড ও আপনার কাছে কেউ লগিন করতেই পারবে না কোন মতেই না এইভাবে আপনি আইডি সিকিউরিটি বাড়াতে পারেন । টু স্টেপ ভেরিফিকেশন সিস্টেম ইমেলে বা ফোনে কোড যাবে এমন ই হবে সব সাইটে তা না অন্য সাইটে অন্য ধরেনের হতে পারে কিন্ত মূলত কোড দিয়ে বেশি এই সিস্টেম টা দেখা যায়।

কিভাবে ফেসবুকে টু স্টেপ ভেরিফিকেশন চালু করবেন?

১। প্রথমে আপনার ফেসুবকে লগিন অবস্থায় সেটিং অপশন এ যান ।

২। তারপর নিচের স্ক্রিনশট অনুসরণ করুন ।

Facebook two-factor authentication Android screenshot 1
20200729 144122 1

৩। তারপর Security and Login এ যান।

Facebook two-factor authentication Android screenshot 3
৪। তারপর নিচের স্কিনশর্ট অনুযায়ী Use two-factor authentication এ যান

Facebook two-factor authentication Android screenshot 4

৫। তারপর  Text Message (SMS) এ যান।

Facebook two-factor authentication Android screenshot 5
৬। আপনার ফেসবুক একাউন্ট যদি ফোন নাম্বার দিয়ে খোলা হয়ে থাকে কিংবা একাউন্টের সাথে ফোন নাম্বার কানেক্টে করা থাকে, তাহলে সেটি দেখাবে, কানেক্ট করা নাম্বারে টু-ফ্যাক্টর ভেরিফিকেশন চালু করতে উক্ত নাম্বারে ক্লিক করুন।

অথবা যদি আপনার কোনো নাম্বার কানেক্ট করা না থাকে বা নতুন নাম্বারে টু-ফ্যাক্টর ভেরিফিকেশন চালু করতে চান তাহলে Add Phone Number এ ক্লিক করুন।

Facebook two-factor authentication Android screenshot 6
৭। নাম্বার যোগ করতে নিচের স্কিনশর্ট অনুসরণ করুন। আর যদি আপনি আগেই কানেক্ট করা নাম্বার ব্যাবহার করেন । তাহলে এ ধাপটি স্কিপ করুন।

Facebook two-factor authentication Android screenshot 7
৮। এবার এখানে OTP চাবে, যার আপনার নাম্বারে SMS এর মাধ্যমে ফেসবুক থেকে পাঠানো হয়েছে।

Facebook two-factor authentication Android screenshot 8
৯। আপনার ফোনের Messege এ দেখুন ফেসবুক থেকে একটি OTP এসেছে।

Facebook two-factor authentication Android screenshot 10
১০। সর্বশেষে Done এ ক্লিক করুন।

Facebook two-factor authentication Android screenshot 11
১১। নিচের স্কিনশর্ট এর মতো Recovery Codes এ যান

Facebook two-factor authentication Android screenshot 12 ১২। এখানে আপনি ১০ টি OTP কোড পাবেন। Copy Codes এ ক্লিক করে কোড গুলো ভালো কোনো সুরক্ষিত জায়গায় বা নোটপ্যাডে সেভ করে করে রাখুন। কারণ যদি কোনো কারনে আপনার কাছে আপনার সিম না থাকে কিংবা সিম হারিয়ে যায়, তখন এই ব্যাকআপ কোড গুলো ব্যাবহার করতে পারেন।

Screenshot 2020 07 29 15 04 20 519 com.facebook.katana
ব্যাস আপনার কাজ শেষ। এবার আপনার আইডিটি লগ আউট করে লগইন করুন। লগইন করার সাথে সাথে আপনার নাম্বারটিতে একটি কোড চলে আসবে আপনাকে এই কোডটা দিয়ে Continue করতে হবে। আপনি চাইলে Device টাকে Save করে রাখতে পারেন তাহলে পরবর্তীতে  ব্রাউজার লগিন করতে কোন কোড দিতে হবেনা। তবে আবার অন্য কোন ব্রাউজার বা অন্য কোন ফোনে লগিন করলে আগের মতো কোড দিয়ে লগিন করতে হবে।

বিশেষ_দ্রষ্টব্যঃ ভুল করে যে নাম্বারে লগইন এপ্রোভাল অপশনটি চালু করবেন  নাম্বার ফেসবুক আইডি থেকে রিমুভ করে দিবেন না। তাহলে কিন্তু  নাম্বারে আর কোড যাবেনা অন্য ব্রাউজার থেকে লগইন করলে কোড যাবেনা। আর  কোডটি না দিলে ফেসবুকে ঢুকতে পারবেন না। যদি নাম্বারটি রিমুভ করতে চান তাহ লে আগে লগইন এপ্রোভাল অপশনটি বন্ধ করে নিবেন।

আপনার যদি কোথাও বুঝতে সমস্যা হয়, তাহলে অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে জানাবেন।