বর্তমান পৃথিবীর পরাধীন দেশগুলোর তালিকা

web 3120321 1280 compress36

ক) এশিয়া মহাদেশঃ

১। তাইওয়ানঃ

চীনের কাছ থেকে আলাদা হতে চেয়েছে তাইওয়ান দেশটি। এরা ১৯৭১ সাল অবধি একটি স্বতন্ত্র দেশ হিসেবেই জায়গা পেয়েছিল দেশটি জাতিসংঘে। কিন্তু তারপরেই চীন এসে এ জায়গাটি দখল করে নেয়, এবং জাতিসংঘের স্বীকৃতি হারায় এরা।

বিশ্বের ক্ষমতাসীন দেশসহ কেওই তেমন স্বাধীন দেশের স্বীকৃতি দেইনি তাইওয়ানকে। মাত্র ২৫টি দেশ স্বীকৃতি দিয়েছে তাইওয়ানকে।

২। আবখাজিয়াঃ

আবখাজিয়া ককেসাস পর্বতমালার পাদদেশে অবস্থিত আইনত একটি স্বায়ত্বশাসিত প্রশাসনিক অঞ্চল এবং কার্যত একটি স্বাধীন প্রজাতন্ত্র রাষ্ট্র, কিন্তু এখনও স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পায়নি।

৩। ফিলিস্তিনঃ

ফিলিস্তিনের স্বাধীনতা বিশ্বের অন্যতম একটি আলোচিত বিষয়। বিশ্বের অনেক রাষ্ট্র একে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃত দিলেও অনেকেই বিরোধিতা করে আসছে, এবং বিশ্বের বড় রাষ্ট্রসমূহদের চাপে তারা এখনো পূর্ণ স্বাধীনতা অর্জন করতে পারেনি। বিশ্বের ১৩৭ টি দেশ[1] স্বাধীনতার স্বীকৃতি দিলেও তারা ইসরায়েলের অত্যাচারের বাইরে যেতে পারেনি।

৪। তিব্বতঃ

তিব্বত চীনের একটি স্বশাসিত অঞ্চল। মধ্য এশিয়ায় অবস্থিত এ অঞ্চলটি তিব্বতীয় জনগোষ্ঠীর আবাসস্থল। তিব্বতীয় মালভূমি অনেক উচু হওয়ায় একে পৃথিবীর ছাদও বলা হয়। ১৯৫৯ সালে গণচীনের বিরুদ্ধে তিব্বতিদের স্বাধীকারের আন্দোলনে ব্যর্থ হয়। বর্তমানে চীন দ্বারা শাসিত।

৫। হংকং ও মাকাওঃ

হংকং ও মাকাও এই দুইটি বিশেষ অঞ্চল চীন দ্বারা শাসিত। তারা নিজেরা মুক্ত হবার আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে। মাকাও অঞ্চল ১৯৯৯ সালের আগ পর্যন্ত পর্তুগিজ দ্বারা শাসিত ছিলো। বর্তমানে এদুভয় অঞ্চল চীন দ্বারা শাসিত।

** এছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র এশিয়া মহাদেশের ব্রিটিশ-ভারতীয় মহাসাগরীয় অঞ্চলের কিছু অংশ ও এক্রোটিরি ও ডেকেলিয়া শাসন করে থাকে।

খ) ইউরোপ মহাদেশঃ
৬। কসোভোঃ

কসোভো পূর্বে সার্বিয়ার একটি প্রদেশ ছিলো। প্রদেশটি ১৯৯৯ সাল থেকে জাতিসংঘ প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে রয়েছে। যদিও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় প্রদেশটির সার্বভৌমত্বের স্বীকৃতি দিয়েছে, কিন্তু এখনো কসোভো সার্বীয় শাসন বলয়ের বাইরে বেরুতে পারেনি। ২০০৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে এটি স্বাধীনতা ঘোষণা করে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য সহ বেশ কিছু দেশ কসোভোকে রাষ্ট্র হিসাবে স্বীকৃতি দিয়েছে।[2]

৭। উত্তর সাইপ্রাসঃ

উত্তর সাইপ্রাস হল সাইপ্রাস দ্বীপের একটি স্বল্প স্বীকৃত রাষ্ট্র। এরা দীর্ঘ সময় ধরে স্বাধীনতার আন্দোলন করলেও শুধু তুরস্ক উত্তর সাইপ্রাসকে রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। আর আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় একে সাইপ্রাস প্রজাতন্ত্রের অংশ বলে মনে করে।

৮। দক্ষিণ ওসেটিয়াঃ

দক্ষিণ ওশেটিয়া দক্ষিণ ককেশাসিয়ার একটি বিতর্কিত অঞ্চল যা আন্তর্জাতিকভাবে জর্জিয়ান অঞ্চলের উত্তর অংশ হিসাবে স্বীকৃত। কিন্তু দক্ষিণ ওশেটিয়ার জনগণ এটা মানতে নারাজ। তারা স্বাধীনতার দাবী জানিয়ে আসছে বরাবর। এবং রাশিয়া, ভেনিজুয়েলা, নিকারাগুয়া, নাউরু এবং সিরিয়া প্রভৃতি রাষ্ট্র স্বীকৃতও দিয়েছে দক্ষিণ ওসেটিয়াকে। তবে এরা এখনো আন্তর্জাতিকভাবে পরাধীন রাষ্ট্র।

চিত্রঃ রুশদের থেকে দেশের স্বীকৃতি পেয়ে উৎযাপন করছে দক্ষিণ ওশেটিয়ান

৯। জিব্রাল্টারঃ

জিব্রাল্টার যুক্তরাজ্যের অধীনস্থ একটি এলাকা যা স্পেনের দক্ষিণে, আটলান্টিক মহাসাগর থেকে ভূমধ্যসাগরের প্রবেশপথে অবস্থিত।

৭১১ সালে উমাইয়াহ খলিফাদের বার্বার গোত্রীয় সেনানেতা তারিক বিন জিয়াদ স্পেন বিজয়ের উদ্দেশ্যে উত্তর আফ্রিকা থেকে জিব্রাল্টার প্রণালী পার হয়ে এখানে প্রথম পদার্পণ করেন। এই দেশটি যুক্তরাজ্য কতৃক শাসিত হচ্ছে বর্তমানে।

১০। ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জঃ

ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ নরওয়েজীয় সাগর ও আটলান্টিক মহাসাগরের মধ্যে অবস্থিত একটি দ্বীপপুঞ্জ। দ্বীপপুঞ্জটি ডেনমার্ক রাজ্যের অধীন একটি স্বায়ত্বশাসিত প্রশাসনিক অঞ্চল বা দেশ। এর আয়তন ১৪০০ বর্গ কিমিঃ এবং জনসংখ্যা ৫০ হাজার।

১১। উত্তর আয়ারল্যান্ডঃ

উত্তর আয়ারল্যান্ড বর্তমানে যুক্তরাজ্যে দ্বারা শাসিত একটি দেশ। দেশটি আয়ারল্যান্ড দ্বীপের উত্তর ভাগে অবস্থিত। বেলফাস্ট দেশটির রাজধানী।

চিত্রঃ মানচিত্রে উত্তর আয়ারল্যান্ড দেখুন

ক্রেডিটঃ প্রদীপ্ত দেলোয়ার /বাংলা কোরা৷ jJF3GvPQEY3ViLHblbb69 xap65YZx HyiF7Gt6AdXCXTC3XSbEu4Devh1q73FuzynRRMs pjeO7lyvI7nxzZdd3GmJNZcTQNKXVStPVujm0 OAhNvjKNMv8 W2ECuwjXFK7iEEw

রাসেল হোসেন
ইন্টারনেটে অধিকাংশ রিডার আমাকে প্রযুক্তি ব্লগার এবং একজন টেকগীক হিসেবেই চেনেন। এছাড়াও আমি ওয়েবসাইট ডেভেলপমেন্টের কাজও করে থাকি, নতুন নতুন জিনিস শিখতে এবং এক্সপ্লোর করতে ভালোবাসি, প্রচণ্ড বই পড়ি ও গান শুনি, বিজ্ঞান চর্চা করতে ভালোবাসি।